জয় মোহনবাগান – জয় ব্যানার্জী

জয় মোহনবাগান 

জয় মোহনবাগান ভাই ।
জয় মোহনবাগান দাদা, জয় মোহনবাগান।।
কিন্তু দাদা তোমাকে তো ঠিক চিনলাম না ? আগে কোথায় দেখেছি বলতো ?
আমার ঠিক মনে পরছে না ।
আরে দেখবে কি করে ভাই? আমি তো থাকি সেই নিউইয়র্কে, আজকেই ফিরলাম দেশে, তোমার গায়ে আমাদের মোহনবাগান এর জার্সি দেখে চিনে নিলাম। ভালো থেক ভাই, জয় মোহনবাগান ।।
জয় মোহনবাগান দাদা, জয় মোহনবাগান, তুমিও ভালো থেকো ।।


• আরে ওদের আলোচনা শুনে আপনার আবার কি হল ? মুখ এরকম ব্যাজার কেন ? চা খান।

• দেখ বাবাই আদিখ্যেতার একটা সীমা পরিসীমা থাকে , এটা কি জিনিস ? কথায় কথায়, জয় মোহনবাগান, জয় মোহনবাগান।

• আসলে কাকু জয় মোহনবাগান টা তো ঠিক দুটো শব্দ নয় যারা মোহনবাগান ক্লাব টা কে প্রান দিয়ে ভালবাসে তাদের জন্য………

• কি ? হ্যা তাদের জন্য কি ? এসব আর কিছুনা সিমপ্লি বখাটে ছেলেদের লোক দেখানো বাড়াবাড়ি রকমের আদিখ্যেতা। যতসব ফুটেজ খোর এর দল। বলি সারা পৃথিবীতে কি মোহনবাগান একটাই ক্লাব রে বাবাই আর ক্লাব নেই?

• আছে । তারাও …….

• কি তারাও !!! হ্যা কি তারাও !!!
বোঝা দেখি এই কথায় কথায় জয় মোহনবাগান , জয় মোহনবাগান এর মানে কি ।।

• যখন ব্রিটিশ রা আমাদের ওপর চরম অত্যাচার করছিলো, সারাদেশ যখন ব্রিটিশ দের সঙ্গে লড়াই করছিলো স্বাধীনতার জন্য । ঠিক তখন ১৯১১ সালে এগারো টা জেদি ছেলের খালিপায়ে ব্রিটিশ দের কে সারা পৃথিবীর সামনে হারিয়ে স্বাধীনতার স্বাদ আমাদের কে উপভোগ করানোর নাম জয় মোহনবাগান ।

• বিপক্ষের কাছে এক গোল খেয়ে দুই গোল দেবার নাম জয় মোহনবাগান।

• এখনো মোহনবাগান ক্লাবের ভেতরে আমরা ছোটরা কোন অন্যায় করলে, বড়দের চরম শাসনের পর আমাদের কে আদর করে মাথায় হাত বুলিয়ে দেবার নাম জয় মোহনবাগান।

• ক্যান্টিনের দুটো ভেজিটেবিল চপ চার জনে ভাগ করে খাবার নাম জয় মোহনবাগান।

• নিজের ক্লাবের জন্য সারারাত জেগে পোস্টার, ব্যানার বানাবার নাম জয় মোহনবাগান।

• পৃথিবীর যেখানেই থাকি মোহনবাগান এর জয়ের পর প্রাণভরে আনন্দ করার নাম জয় মোহনবাগান।

• মোহনবাগান হেরে গেলে যখন প্রত্যেকের চোখের কোন ভিজে যায়, তার নাম জয় মোহনবাগান।

• কোন ম্যাচ হেরে যাবার পর জেতার জন্য ঘুরে দাঁড়াবার নাম জয় মোহনবাগান।

• ভোর পাঁচটা হোক বা রাত একটা ক্লাবের কোতাবা প্লেয়ার রা যখন আসে তাদের কে আনতে যাওয়া হাজার হাজার সমর্থকের নাম জয় মোহনবাগান।

• বেলেঘাটার দোকানের লোকটার মোহনবাগানের গোল করার মুহূর্তে সব কাজ ভুলে যাবার নাম জয় মোহনবাগান।

• মোহনবাগানের অ্যাওয়ে ম্যাচে মোহনবাগানের সমর্থনে বিপক্ষ টিমের মাঠে গিয়ে গলা ফাটানোর নাম জয় মোহনবাগান।

• ট্যাংরা তে ক্লাবের জয়ধ্বনি উঠলে, টেক্সাসে তার প্রতিধ্বনি শুনতে পাওয়ার নাম জয় মোহনবাগান।

• ক্যান্টিনের কাজুদার আমাদের সব আব্দার হাসি মুখে মেটানোর নাম জয় মোহনবাগান।

• মোহনবাগানের জন্য আবেগের নাম জয় মোহনবাগান।

• মোহনবাগানের জন্য ভালোবাসার নাম জয় মোহনবাগান।

• মোহনবাগানের জন্য গর্জনের নাম জয় মোহনবাগান।

• সারা পৃথিবীর কাছে ভারতবর্ষের একটা পরিচয়ের নাম জয় মোহনবাগান।

তাই জয় মোহনবাগান খালি দুটো শব্দ নয় কাকু , একটা আবেগ , ভালোবাসা আর অনেকগুলো জেদির গর্জনের আওয়াজ।
তাই , জয় মোহনবাগান শব্দ দুটোকে সম্মান দেখাও বা না দেখাও তোমার ব্যাপার
কোনোদিন অসম্মান কর না ।
“জয় মোহনবাগান” কে অসম্মান করার অধিকার আমরা কাউকে দিই নি ।
স্বয়ং ঈশ্বরকেও না ।